শরীয়তপুরে শত-শত একর ফসলী জমি নষ্ট করে পুকুর খননের ফলে খাদ্য ঘাটতির আশংকা

আজকের শরীয়তপুর ডেস্ক :

শরীযতপুরে শত-শত একর ফসলী জমি নষ্ট করে মৎস চাষ প্রকল্পের জন্য পুকুর খনন চলছে। এভাবে ফসলী জমি নষ্ট করে পুকুর খনন করলে অচিরেই খাদ্য ঘাটতির আশংকা করেছেন বিশেষজ্ঞগণ।

পদ্মা, মেঘনা, আঁড়িয়ালখা ও কীর্তণখোলা নদী পরিবেষ্ঠিত শরীয়তপুর জেলা। জেলার অধিকাংশ চরাঞ্চল। চরাঞ্চলীয় ভূমিতে ফুল-ফসল তেমন একটা উৎপাদন হয়না। যা কিছু হয় তা অতিবৃষ্টি, অনবৃষ্টি, বন্যা ও জলোচ্ছাসে নষ্ট হয়ে যায়। জেলার অধিকাংশ এলাকা কৃষি কাজের জন্য উপযুক্ত। কৃষি কাজের উপযুক্ত এ ভূমির উপর রাজনৈতিক ছত্রছায়ায় নজর পড়েছে এক শ্রেণির কিছু অসাধু ব্যবসায়ীদের। অসাধু ব্যবসায়ীরা সরলমনা কৃষকদের নিকট থেকে উৎপাদিত ফসলের মূল্য সমপরিমান অর্থদিয়ে ফসলী জমি নিজেদের আওতায় লিজ নিয়ে তাতে অবৈধ এক্সেভেটর মেশিন লাগিয়ে পুকুর খনন করে মৎস চাষের আওতায় নিয়ে যাচ্ছে। প্রতিদিনই জেলায় কোথাও না কোথাও ফসলী জমি নষ্ট হচ্ছে। প্রশাসনের নাকের ডগায় প্রতিনিয়ত এ অপকর্ম হলে প্রশাসন নীরব ভূমিকা পালন করছেন। এ নিয়ে সকল মহলে চাপা ক্ষোভ বিরাজ করছে। বিষয়টি কেউ মেনে নিতে পারছেন না। বিষয়টি যাদের দেখভাল করার কথা কিন্তু অবৈধ ব্যবসায়ীদের সাথে তাদের দহরম-মহরম বাড়ছে বলে গুঞ্জন শোনা যায়।

এদিকে বিষয়টি উদ্বেক প্রকাশ করেছে জেলার সচেতন নাগরিকবৃন্দ ও বিশেষজ্ঞ মহল। এভাবে ফসলী জমি নষ্ট হলে অচিরেই ব্যাপক খাদ্য ঘাটতি দেখা দেবে বলে তারা জানিয়েছেন। বিষয়টি সংশ্লিষ্টদের দৃষ্টি দেয়ার অনুরোধ করেছেন বিশেষজ্ঞরা।

Facebook Comments

About T. M. Golam Mostafa

Check Also

আগামীকাল শরীয়তপুরে ভার্চুয়াল পদ্ধতিতে ২ টি মডেল মসজিদ উদ্বোধন করবেন প্রধানমন্ত্রী শেখ হাসিনা

আবদুল বারেক ভূঁইয়া: মুজিববর্ষ উপলক্ষে আগামীকাল ১০ জুন বৃহস্পতিবার সকাল ১০ টায়  প্রধানমন্ত্রী শেখ হাসিনা …

Leave a Reply

Your email address will not be published. Required fields are marked *