শরীয়তপুর জেলা পুলিশের প্রেস ব্রিফিং, ৫০ কেজি গাঁজা উদ্ধার ও আটক ১

স্টাফ রিপোর্টার:
শরীয়তপুর সখিপুর থানা এলাকা হতে ৫০ (পঞ্চাশ) কেজি গাঁজা উদ্ধারসহ ০১ জনকে আটক করে জেলা পুলিশ। এই সংক্রান্তে  ৫ মে বুধবার দুপুর সাড়ে ১২ টায় শরীয়তপুর পুলিশ সুপারের কার্যালয়ের সম্মেলন কক্ষে জেলায় কর্মরত সাংবাদিকদের সংবাদ সম্মেলনের মাধ্যমে ঘটনা সম্পর্কে বিস্তারিত জানান পুলিশ সুপার, শরীয়তপুর  এস. এম. আশরাফুজ্জামান।
এ সময় সংবাদ সম্মেলনে পুলিশ সুপার জানান, দীর্ঘদিন ধরে তথ্য সংগ্রহের ভিত্তিতে জানতে পারি যে, কতিপয় মাদক ব্যবসায়ী ভারত হইতে কাচামাল বহনকারী ট্রাকের মধ্যে কাঁচামালের সহিত বিপুল পরিমানে গাঁজা জাতীয় মাদক বহন করিয়া চুয়াডাঙ্গা, কুষ্টিয়া, ফরিদপুর, মাদারীপুরের বিভিন্ন স্থল পথের রুট ব্যবহার করে মাদারীপুর জেলার শিবচর উপজেলাধীন পদ্মানদী হয়ে শরীয়তপুর জেলার সখিপুর থানাধীন কাচিকাটা ইউনিয়নস্থ পদ্মা নদীর শাখা নদীর বানিয়াল ঘাট নামক নদী পথ ব্যবহার করে মুন্সিগঞ্জ জেলার বিভিন্ন রুট ব্যবহার করে ঢাকায় নিয়ে যায়।
মাদক ব্যবসায়ীদের ধরার লক্ষ্যে দীর্ঘদিন ধরে একাধিক সোর্স নিয়োগ করে তথ্য উপাত্ত সংগ্রহ করে ৪ মে মঙ্গলবার সংগ্রহকৃত তথ্য উপাত্তের ভিত্তিতে জানা যায়, এ রুট ব্যবহার করে পদ্মা নদীতে ট্রলার যোগে কতিপয় মাদক ব্যবসায়ীরা বিপুল পরিমান মাদক বহন করে নিয়ে যাচ্ছে।  সংবাদের ভিত্তিতে পুলিশ সুপার, শরীয়তপুরের দিক নির্দেশনায় সখিপুর থানার অফিসার ইনচার্জ এর নেতৃত্বে সখিপুর থানা পুলিশ স্পিডবোট যোগে সখিপুর থানাধীন পদ্মা নদীতে অভিযান পরিচালনা করে আসামী ১। সুজন মাতুব্বর (৩৩), পিতা- মৃতঃ তোতা মাতুব্বর, সাং- চর গজারিয়া, ইউনিয়ন- চর মানাইর, থানা- সদরপুর, জেলা- ফরিদপুরকে ৪ মে বুধবার সখিপুর থানাধীন কাচিকাটা ইউনিয়নের চরজিংকিং সাকিনস্থ বানিয়াল ঘাট নামক নদীর ঘাটে একটি ইঞ্জিন চালিত ট্রলারে ০৪ (চার) টি চটের বস্তার মধ্যে ৫০ (পঞ্চাশ) কেজি গাঁজা, যাহার মূল্য অনুমান ৫,০০,০০০/- টাকা ও গাঁজা বহনকারী একটি ট্রলার উদ্ধারপূর্বক জব্দ করা হয়।
এছাড়া উক্ত ঘটনায় সখিপুর থানার মামলা নং-০২, তারিখ ০৪/০৫/২০২১, খ্রিঃ রুজু করা হয় এবং ধৃত আসামীর অন্যান্য সহযোগী আসামীদের সনাক্তপূর্বক গ্রেফতারের চেষ্টা অব্যহত আছে। আসামীরা আন্তর্জাতিক মাদক ব্যবসার সদস্য। তাঁদের বিভিন্ন জেলায় মাদক ব্যবসায়ের সক্রিয় সদস্য রহিয়াছে। ধৃত আসামী সুজন মাতুব্বরকে পুলিশ রিমান্ডে আনিয়া ব্যাপক জিজ্ঞাসাবাদের জন্য বিজ্ঞ আদালতে ০৭ (সাত) দিনের পুলিশ রিমান্ডের আবেদন প্রেরণ করা হয়েছে।
এসময় প্রেস ব্রিফিংয়ে উপস্থিত ছিলেন  মোঃ সাইফুর রহমান, পিপিএম, অতিরিক্ত পুলিশ সুপার (প্রশাসন ও অপরাধ), শরীয়তপুর, তানভীর আহমদ, অতিরিক্ত পুলিশ সুপার (গোসাইরহাট সার্কেল), শরীয়তপুর, মোঃ আমিনুর রহমান, সদ্য পদোন্নতিপ্রাপ্ত অতিরিক্ত পুলিশ সুপার (ভেদরগঞ্জ সার্কেল), শরীয়তপুর, মোঃ আসাদুজ্জামান হাওলাদার, অফিসার ইনচার্জ, সখিপুর থানা, শরীয়তপুর,  মোঃ আনোয়ার, পুলিশ পরিদর্শক, অপরাধ শাখা, পুলিশ সুপারের কার্যালয়, শরীয়তপুর, আজহারুল ইসলাম, ডিআইও-১, জেলা বিশেষ শাখা, শরীয়তপুরসহ জেলা পুলিশের বিভিন্ন পর্যায়ের কর্মকর্তা-কর্মচারীবৃন্দ প্রিন্ট ও ইলেকট্রনিক মিডিয়ার সাংবাদিকবৃন্দ।

 

 

 

 

Facebook Comments

About T. M. Golam Mostafa

Check Also

আগামীকাল শরীয়তপুরে ভার্চুয়াল পদ্ধতিতে ২ টি মডেল মসজিদ উদ্বোধন করবেন প্রধানমন্ত্রী শেখ হাসিনা

আবদুল বারেক ভূঁইয়া: মুজিববর্ষ উপলক্ষে আগামীকাল ১০ জুন বৃহস্পতিবার সকাল ১০ টায়  প্রধানমন্ত্রী শেখ হাসিনা …

Leave a Reply

Your email address will not be published. Required fields are marked *