দুর্নীতির লাগাম টানা না গেলে, উন্নয়নের সুফল থেকে জনগণ বঞ্চিত হবে – সৈয়দ সাইফুদ্দীন আহমদ আল হাসানী ওয়াল হোসাইনী মাইজভাণ্ডারী

টি.এম গোলাম মোস্তফা:
বাংলাদেশ সুপ্রিম পার্টি’র চেয়ারম্যান, সৈয়দ সাইফুদ্দীন আহমদ আল হাসানী ওয়াল হোসাইনী বলেছেন, বিগত দশকে বিভিন্ন সূচকে বাংলাদেশ যথেষ্ট উন্নতি করেছে। বিশেষত যোগাযোগ ব্যবস্থা, বিদ্যুৎ উৎপাদন ও তথ্য-প্রযুক্তি বিষয়ে সফলতা দৃশ্যমান। আরো অনেক মেগাপ্রজেক্ট ও দীর্ঘমেয়াদী পরিকল্পনা বাস্তবায়নের কাজ চলমান রয়েছে।
ইতোমধ্যে বাংলাদেশ স্বল্পোন্নত দেশ থেকে উন্নয়নশীল দেশের মর্যাদা পেয়েছে এবং ২০৪১ সালের মধ্যে উন্নত দেশ হিসেবে আত্মপ্রকাশ করার স্বপ্ন দেখছে।
কিন্তু দুর্নীতির দেয়াল আমাদের কাঙ্ক্ষিত অগ্রযাত্রার পথকে অবরুদ্ধ করে রেখেছে। বার্লিনভিত্তিক ট্রান্সপারেন্সি ইন্টারন্যাশনাল (টিআই) কর্তৃক পরিচালিত ‘দুর্নীতির ধারণা সূচক (সিপিআই) ২০২০’ অনুযায়ী ১৮০টি দেশের মধ্যে তালিকার নীচের দিক থেকে বাংলাদেশ ১২তম অবস্থানে আছে।
গত বছরের চেয়ে দু ধাপ অবনমন হয়েছে বাংলাদেশের। করোনা সংকটে স্বাস্থ্যখাতে দুর্নীতিকে এর প্রধান কারণ হিসেবে দেখা হচ্ছে। এটি অত্যন্ত লজ্জাজনক যে, আমরা যখন স্বাধীনতার সুবর্ণ জয়ন্তী পালন করছি, তখন আমরা মুক্তিযুদ্ধের চেতনার মূলমন্ত্র তথা দুর্নীতুমুক্ত, বৈষম্যহীন দেশ গড়ার প্রত্যয় থেকে এখনও অনেক দূরে।
সৈয়দ সাইফুদ্দীন আহমদ আল হাসানী ওয়াল হোসাইনী মাইজভাণ্ডারী আরো বলেন, দুর্নীতির সাথে উন্নয়নের নিবিড় সম্পর্ক। দুর্নীতি দমন করা না গেলে, উন্নয়ন যেমন দীর্ঘস্থায়ী হয় না, তেমনি জনগণ উন্নয়নের সুফল থেকে বঞ্চিত হয়। সুযোগ সুবিধাগুলো নির্দষ্ট ক্ষমতাশালী গোষ্ঠীর মাঝেই সীমাবদ্ধ থাকে। সমাজে বৈষম্য, ভেদাভেদ ও বিশৃঙ্খলা বাড়তে থাকে।
তাই সবার আগে দুর্নীতির বিরুদ্ধে জিরো টলারেন্স স্ট্রাটেজি নিয়ে সরকারকে দেশ ও দেশের জনগণের জন্য কাজ করার এবং তরুণ প্রজন্মকে দুর্নীতির বিরুদ্ধে শপথ গ্রহণের মাধ্যমে সুখী সমৃদ্ধ বাংলাদেশ উপহার দেয়ার আহবান জানান সাইয়্যিদ সাইফুদ্দীন আহমদ আল হাসানী মাইজভাণ্ডারী।
২৩ মার্চ মঙ্গলবার বাদ আছর,শরীয়তপুরের জাজিরা থানার সেনেরচরে পবিত্র ঈদ-এ-মিলাদুন্নবী (সাল্লাল্লাহু আলাইহি ওয়াসাল্লাম) উপলক্ষ্যে আঞ্জুমান-এ-রাহমানিয়া মইনীয়া মাইজভাণ্ডারীয়া ও মইনীয়া যুব ফোরাম, জাজিরা থানা আয়োজিত একটি সুন্নী সম্মেলনে প্রধান অতিথির বক্তব্যে তিনি এসব কথা বলেন।
আলোচনায় অংশগ্রহণ করেন, মুফতি বাকীবিল্লাহ্ আল আজহারী, মওলানা শেখ সাদী আবদুল্লাহ সাদেকপুর মাইজভানডারী,মওলানা রুহুল আমিন ভুইয়া চাঁদপুরী, হাফেজ মুফতি মাকসুদুর রহমান, হাফেজ মওলানা মনসুর আলী মাইজভাণ্ডারী, স্থানীয় খলিফাবৃন্দ, আঞ্জুমান-এ-রাহমানিয়া মইনীয়া মাইজভাণ্ডারীয়া ও মইনীয়া যুব ফোরাম, জাজিরা থানার নেতৃবৃন্দ।
দোজাহানের বাদশাহ্, হুযুরপুর নূর আহমদ মুজতবা, মুহাম্মদ মুস্তফা (সাল্লাল্লাহু আলাইহি ওয়াসাল্লাম) এর প্রতি দরূদ ও সালাতু সালাম পেশ শেষে বিশ্বমানবতার কল্যাণ কামনায় বিশেষ মুনাজাত করেন, সৈয়দ সাইফুদ্দীন আহমদ আল হাসানী ওয়াল হোসাইনী মাইজভাণ্ডারী। হাজারো নবীপ্রেমিক জনতা মাহ্ফিলে অংশগ্রহণ করে।

 

Facebook Comments

About T. M. Golam Mostafa

Check Also

সায়মা ওয়াজেদ পুতুল পরিষদের কেন্দ্রীয় কমিটির সাংগঠনিক সম্পাদক নির্বাচিত এনামুল হক রাফিউ

স্টাফ রিপোর্টার: সায়মা ওয়াজেদ পুতুল পরিষদের কেন্দ্রীয় কমিটি গঠন করা হয়েছে। কমিটিতে সাংগঠনিক সম্পাদক নির্বাচিত …

Leave a Reply

Your email address will not be published. Required fields are marked *